প্রকাশিত : Tue, Oct 3rd, 2017

তুরাগে ছয় মাসের শিশু চুরি হওয়া ১০দিন পর উদ্ধার, আটক দুই

মোল্লা তানিয়া ইসলাম তম্মাঃ   রাজধানীর তুরাগথানাধীন ধউর আশুতিয়া এলাকা থেকে শাহাবীব নামের ছয়মাসের একটি শিশু চুরি হওয়ার ১০দিন পর ফেনী থেকে উদ্ধার ও শিশু চুরির দায়ে দুইজনকে আটক করেছে তুরাগ থানা পুলিশ । খোঁজ নিয়ে জানা যায় প্রায় তিন বছর পূর্বে শেরপুর জেলার, শ্রীবর্দী থানার, রানীসিমল গ্রামের,শাহাজাহান মিয়ার ছেলে, মোঃ জনি মিয়া (২৮) তার নববধূ সুমাইয়াকে নিয়ে ধউর আশুতিয়া এলাকায় রব সাহেবের বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসাবে বসবাস শুরু করে এবং স্থানীয় একটি গার্মেন্টসে শ্রমিক হিসাবে চাকুরী করে । গত প্রায় ছয় মাস পূর্বে জনি ও সুমাইয়া দম্পতির কোল জুড়ে ফুটফুটে একটি ছেলে সন্তানের জন্ম হয়, তার নাম রাখা হয় শাহাবীব এবং সুখ শান্তিতেই দিন কাটছিল জনি সুমাইয়া দম্পতির । সেপ্টেম্বর মাসের ১৭ তারিখে পাসের একটি খালি রুমে নিলুফা ইয়াসমিন (২২) নামের এক মহিলা ভাড়াটিয়া হিসাবে উঠেন । বাসায় উঠার পর থেকেই ঐ মহিলা শাহাবীবকে কোলে নিত এবং খুব আদর করত । ঘটনার দিন ২৩ শে সেপ্টম্বর সন্ধ্যা সাতটার দিকে শাহাবীব ঐ মহিলার কোলে থাকা অবস্থায় বিদ্যুৎ চলে যায় ।শাহাবীবের মা দোকানে মোমবাতি আনতে গেলে এ সুযোগে শাহাবীবকে নিয়ে ঐ মহিলা কেটে পড়ে । শাহাবীবের মা দোকান থেকে এসে ঐ মহিলাসহ তার সন্তানকে দেখতে না পেয়ে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখোজি শুরু করে , অনেক খোঁজখোজির পরও তাদের কোন সন্ধান না পেয়ে পরের দিন শাহাবীবের বাবা জনি মিয়া বাদী হয়ে তুরাগ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেণ যার নং ১০৮৭ তাং ২৪/৯/২০১৭ইং । উক্ত সাধারণ ডায়েরীর তদন্ত ভার দেওয়া হয়, থানার এস আই আমজাদ হোসেনকে । তদন্ত ভার পাওয়ার পর এস আই আমজাদ ৯ দিন প্রজন্ত বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে ও তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে জানতে পারে চোর সহ শিশুটির অবস্থান । পরে ২ অক্টোবর দিন গত রাতে  অভিযান চালিয়ে ফেনী জেলার, ছাগলনাইয়া থানার, নিচকুঞ্জ গ্রাম থেকে শিশুটিকে উদ্ধার এবং শিশু চুরির অপরাধে ঐ এলাকার মৃত্যু আব্দুর রহিমের মেয়ে নিলুফা ইয়াসমিন (২২), নিলুফার মা রহিমা (৪৮)কে গ্রেপ্তার করা হয় । এব্যাপারে তুরাগ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে যার নং ৩ তাং ২/৯/২০১৭ইং ।।

6,721 total views, 3 views today

Related Posts

Share

Comments

comments

রিপোর্টার সম্পর্কে

%d bloggers like this: