প্রকাশিত : Sat, Nov 4th, 2017

তুরাগে কলেজ ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

মোল্লা তানিয়া ইসলাম তমাঃ রাজধানীর তুরাগে এক কলেজ ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে তুরাগ থানা পুলিশ। শনিবার দুপুর ১টার দিকে তুরাগের কামার পাড়া এলাকা থেকে ফাহিমা আক্তার সাথী (১৯) নামের ঐ ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। তুরাগ থানার একটি মামলা সূত্রে জানা যায়, স্বামীর উপর অভিমান করে শুক্রবার দিনগত রাতের কোন এক সময় ঘরের আড়ার সাথে ওড়না দ্বারা ফাস লাগিয়ে ঐ কলেজ ছাত্রী আত্তহত্যা করে। সকালে স্বামী রাকীবের ঘুম ভাংলে স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে রাকিব পালানোর চেষ্টা করে। প্রতিবেশিরা বিষয়টি আছ করতে পেরে রাকিবকে আটক করে রাখে ও সাথীর বাবা মাকে ফোনের মাধ্যমে সাথীর মৃত্যুর সংবাদ জানান। পরে সাথীর বাবা মোঃ আব্দুর রহিম দুপুর ১২ টার দিকে ঘটনা স্থলে উপস্থীত হয়ে থানা পুলিশকে খবর দিলে, তুরাগ থানার এস আই নাজিম উদ্দীন ঘটনা স্থলে উপস্থীত হয়ে লাশ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করে ও রাকিবকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পরিবারের বরাত দিয়ে এস আই নাজিম উদ্দীন জানান প্রায় ১ বছর পূর্বে রাকিব ও সাথীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর কামারপাড়া এলাকার আব্দুল খালেকের বাড়ীতে বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করত ও রাকিব ড্রাইভিং পেশায় কর্মরত ছিল ও ফাহিমা আক্তার সাথী উত্তরার ওয়াইড ভিশন স্কুল এন্ড কলেজের ২য় বর্ষে অধ্যয়নরত ছিল। নিহত সাথী টাঙ্গাইল জেলার, ধনবাড়ী থানার, চারাভাঙ্গা গ্রামের মোঃ আব্দুর রহিমের মেয়ে ও আটককৃত রাকিব, ভোলা জেলার, বোরহান উদ্দীন থানার, মুলাইপতন গ্রামের মোঃ সিরাজ মিয়ার ছেলে। এই ঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে তুরাগ থানায় একটি হত্যার প্ররোচনা আইনে মামলা দায়ের করেছেন যার নং ৬, তাং ০৪/১১/২০১৭ইং,

6,956 total views, 3 views today

Related Posts

Share

Comments

comments

রিপোর্টার সম্পর্কে

%d bloggers like this: