সকাল ১০:০৫ | বৃহস্পতিবার | ২২শে আগস্ট, ২০১৯ ইং | ৭ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবন্ধুর চোখেই দেশ উন্নয়নের স্বপ্ন দেখেন জননেত্রী শেখ হাসিনা- বোররচরে মোহিত উর রহমান শান্ত

বিল্লাল হোসেন প্রান্ত ॥
আগামী নির্বাচনে চরাঞ্চলবাসীর কাছে শেখ হাসিনার ও নৌকার অধিকার রয়েছে। সে অধিকারকে জয়ের সোপানে পৌছে দেয়ার প্রতিশ্রুতি কি আমরা দিতে পারি ? এমন প্রশ্ন রাখেন মোহিত উর রহমান শান্ত। জবাবে হাজারও মানুষ বিপুল উচ্ছ্বাসে হ্যা সূচক জবাব দেন।
ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মোহিত উর রহমান শান্ত বলেছেন, যে মানুষটি এ বোরচরের জন্য , বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্যে উন্নয়নে জন্য এতো কিছু করেছেন সে মানুষটি আপনাদের কাছে এটি চাইতেই পারেন।
তিনি বলেন, আজ এই চরাঞ্চলের বোররচর থেকে আমি আপনাদের পক্ষে বলতে চাই আগামী নির্বাচন হবে আবারও নৌকার বিজয়ের নির্বাচন। জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ফের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত করার নির্বাচন। এ জন্য তিনি যার গলায়ই নৌকা মার্কা ঝুলিয়ে দিবেন আমরা সে মানুষটির জন্য নৌকার জয় ছিনিয়ে আনতে বদ্ধ পরিকর।
জননেতা মোহিত উর রহমান শান্ত আওয়ামী লীগের দূর্গ চরাঞ্চলের মানুষজনকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, বিগত (২০০১) নির্বাচনে সদরে আওয়ামী লীগের যখন ভড়াডুবি হয়েছিল তখনও এই বোররচর জেগেছিল। আপনারা বিপুল ভোটে বারবার নৌকাকে বিজয়ী করেন।


শনিবার (২৭ জানুয়ারি) বিকেলে ময়মনসিংহ সদর উপজেলার বোররচর বাত্তিপাড়া সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয় মাঠে ৩ নং বোরচর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
সম্মেলন উদ্বোধন করেন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ শহিদুল ইসলাম, এতে প্রধান বক্তা ছিলেন ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগ আহবায়ক এড. আজহারুল ইসালাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন,জেলা যুবলীগ যুগ্ম আহবায়ক শাহরিয়ার মো: রাহাত খান, আখেরুল ইমাম সোহাগ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক উপাধক্ষ্য মোশারফ হোসেন বাচ্চু, জেলা যুবলীগ ৩ নং বোররচর ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ আহবায়ক মো: শওকত আলী বুদু, যুগ্ম আহবায়ক সুলতান মাহমুদ সরকার।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ৩ নং বোররচর ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি মো: আব্দুল হালিম, সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মো: সাইদুর রহমান।
শান্ত বলেন, আমার জন্মের পর থেকে দেখেছি বোররচরে নৌকার হাল ধরে রেখেছেন আমার বাবার রাজনৈতিক সহযোদ্ধা শ্রদ্ধেয় পাগলা মান্নান চাচা, বুদু চাচা,বদর চাচাসহ আরও অনেকে। তিনি বলেন, এ জনপদ কে আওয়ামী লীগের ঘাটি করতে যারা কাজ করছেন তাদের প্রতি সম্মান জানিয়ে আজ আমি এ এলাকায় এসেছি নৌকার কথা বলতে।
তিনি বলেন, মায়ের কাছে মামা বাড়ির কথা বলে লাভ নেই , আপনারা আমার চাইতে অনেক ভালো বলতে পারবেন। আজ আমি যখন কিছু বলার সুযোগ পেয়েছি, তাই আমি আমার নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য কিছু বলবো। আমার নেত্রী প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ৮ বছর শাসন আমলে জনগনের জীবনমান উন্নয়নে কি করেন নাই? তিনি বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের ভাগ্যে উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। জননেত্রী শেখ হাসিনা তার বাবার চোখে এ দেশ উন্নয়নে স্বপ্ন দেখেন। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে উঠছে তার কন্যার হাতেই। জননেত্রী শেখ হাসিনার আমলেই আগামী নির্বাচনের আগেই বাংলাদেশ বিশ্ব সভায় উন্নয়শীল দেশ এ উন্নীত হতে যাচ্ছে। স্বপ্নের পদ্মা সেতু এখন বাস্তব রুপ নিয়েছে।
তিনি বলেন, যে বাংলাদেশকে তলাবিহিন ঝুড়ি বলা হতো, সে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে প্রতিনিধিত্ব করে। মানায়নমার আমাদের দেশের একটি বিরাট অংশ দখল করে ছিল।
বিগত আমলের কোন রাষ্ট্র প্রধান তা উদ্ধার করতে পারে নাই। জননেত্রী শেখ হাসিনা তা উদ্ধার করেছে। তিনি সমুদ্র জয় করেছেন আরেকটি বাংলাদেশ অর্জন করেছেন।
তিনি আরও বলেন, ভারতের কাছে থেকেও টেবিল বৈঠকের মাধ্যেমে আমাদের জল সীমা উদ্ধার করেছেন। জননেত্রী শেখ হাসিনা ১০ লাক্ষ রহিঙ্গাকে বাংলাদেশে আশ্রয় দিয়েছেন। এবং তাদের জন্য খাবার,বাসস্তান, চিকিৎসা দিয়ে বিশ্বে প্রশংসিত হয়েছেন।


বজ্রকণ্ঠি সুবক্তা শান্ত বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধের চেতনা পুনরুদ্ধার করেছেন। তিনি খালেদা জিয়া- রাজাকার মুজাহিদ-নিজামির হাত থেকে রক্ষা করে বাংলাদেশকে আসল পরিচয়ে ফিরিয়ে এনেছেন।
তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষা ব্যবস্থায় অনেক সহজ করেছেন মেয়েদের জন্য শিক্ষা ব্যবস্থা অবৈতনিক করেছেন। কৃষি ক্ষেত্রে অবারিত উন্নয়ন এনেছেন।
শান্ত বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা ময়মনসিংহ চরাঞ্চলের ছেলে মেয়েদের জন্য তিনটি স্কুল করে দিয়েছেন। চরাঞ্চলে শতভাগ বিদ্যুতের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। এ কৃতিত্বের জন্য আমার বাবা আলহাজ অধ্যক্ষ মতিউর রহমানও দাবিদার।
এর আগে সম্মেলনস্থলে যোগদানের পূর্বে শম্ভূগঞ্জ থেকেই পথে পথে হাজার হাজার নেতাকর্মী,সমর্থক ও সাধারণ জনতা প্রিয় নেতা মোহিত উর রহমান শান্তকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।
পথে তিনি চরখরিচা উচ্চ বিদ্যালয়ে হাজারও ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে দেখা করেন। স্কুলের ছাত্র ছাত্রীদের শিক্ষা সফর উপলক্ষে ব্যক্তিগত আর্থিক অনুদান দেয়ার ঘোষনা দেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» উত্তরায় ডেঙ্গুতে মাইলষ্টোন স্কুল ছাত্রের মৃত্যু

» রাজধানীর তুরাগ থানায় জেন্ডার বেজড ভায়োলেন্স সচেতনতা সভা অনুষ্ঠিত

» ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধে উত্তরা ট্রাফিক পুলিশের র‌্যালী

» তুরাগে পুলিশ পরিচয়ে প্রতারণায় আটক-১

» ডিএনসিসি-৫১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শরীফুর রহমানকে সংবর্ধনা

» ভর বর্ষায় খোড়াখুড়ি, দূর্ভোগে উত্তরার মানুষ

» জেনে নিন, ডেঙ্গু জ্বরের লক্ষণ ও প্রতিকার

» ঝাড় ফুঁক দিয়েই নারী-শিশু ধর্ষণ করতেন ইমাম

» সাংবাদিকদের মাঝে ঐক্যের বিকল্প নেই: বিএমএসএফ

» তুরাগে পড়ে যাওয়া ট্যাক্সিক্যাবের সন্ধান মেলেনি, উদ্ধার কাজ চলছে

» উত্তরায় কিশোর গ্যাং গ্রুপের ১৪ সদস্য আটক

» বাংলাদেশে অফিস চালু করছে ফেসবুক

» উচ্চমাধ্যমিকের ফল প্রকাশ: পাসের হার ৭৩.৯৩%

» বিয়ের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নববধূকে তালাক যৌতুকে মোটরসাইকেল না পেয়ে

» ট্রাফিক সার্জেন্ট কিবরিয়াকে বাঁচানো গেল না

আমাদের সঙ্গী হোন

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

বাসা#৪৯, রোড#০৮, তুরাগ, ঢাকা।
বার্তা কক্ষ : 01781804141
ইমেইল : timesofbengali@gmail.com

 

© এ.আর খান মিডিয়া ভিশন এর অঙ্গ প্রতিষ্ঠান

      সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার টাইমস্ অফ বেঙ্গলী .কম

কারিগরি সহযোগিতায় এ.আর খান হোস্ট

বৃহস্পতিবার, ৭ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সকাল ১০:০৫ ,

বঙ্গবন্ধুর চোখেই দেশ উন্নয়নের স্বপ্ন দেখেন জননেত্রী শেখ হাসিনা- বোররচরে মোহিত উর রহমান শান্ত

বিল্লাল হোসেন প্রান্ত ॥
আগামী নির্বাচনে চরাঞ্চলবাসীর কাছে শেখ হাসিনার ও নৌকার অধিকার রয়েছে। সে অধিকারকে জয়ের সোপানে পৌছে দেয়ার প্রতিশ্রুতি কি আমরা দিতে পারি ? এমন প্রশ্ন রাখেন মোহিত উর রহমান শান্ত। জবাবে হাজারও মানুষ বিপুল উচ্ছ্বাসে হ্যা সূচক জবাব দেন।
ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মোহিত উর রহমান শান্ত বলেছেন, যে মানুষটি এ বোরচরের জন্য , বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্যে উন্নয়নে জন্য এতো কিছু করেছেন সে মানুষটি আপনাদের কাছে এটি চাইতেই পারেন।
তিনি বলেন, আজ এই চরাঞ্চলের বোররচর থেকে আমি আপনাদের পক্ষে বলতে চাই আগামী নির্বাচন হবে আবারও নৌকার বিজয়ের নির্বাচন। জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ফের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত করার নির্বাচন। এ জন্য তিনি যার গলায়ই নৌকা মার্কা ঝুলিয়ে দিবেন আমরা সে মানুষটির জন্য নৌকার জয় ছিনিয়ে আনতে বদ্ধ পরিকর।
জননেতা মোহিত উর রহমান শান্ত আওয়ামী লীগের দূর্গ চরাঞ্চলের মানুষজনকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, বিগত (২০০১) নির্বাচনে সদরে আওয়ামী লীগের যখন ভড়াডুবি হয়েছিল তখনও এই বোররচর জেগেছিল। আপনারা বিপুল ভোটে বারবার নৌকাকে বিজয়ী করেন।


শনিবার (২৭ জানুয়ারি) বিকেলে ময়মনসিংহ সদর উপজেলার বোররচর বাত্তিপাড়া সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয় মাঠে ৩ নং বোরচর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
সম্মেলন উদ্বোধন করেন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ শহিদুল ইসলাম, এতে প্রধান বক্তা ছিলেন ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগ আহবায়ক এড. আজহারুল ইসালাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন,জেলা যুবলীগ যুগ্ম আহবায়ক শাহরিয়ার মো: রাহাত খান, আখেরুল ইমাম সোহাগ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক উপাধক্ষ্য মোশারফ হোসেন বাচ্চু, জেলা যুবলীগ ৩ নং বোররচর ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ আহবায়ক মো: শওকত আলী বুদু, যুগ্ম আহবায়ক সুলতান মাহমুদ সরকার।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ৩ নং বোররচর ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি মো: আব্দুল হালিম, সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মো: সাইদুর রহমান।
শান্ত বলেন, আমার জন্মের পর থেকে দেখেছি বোররচরে নৌকার হাল ধরে রেখেছেন আমার বাবার রাজনৈতিক সহযোদ্ধা শ্রদ্ধেয় পাগলা মান্নান চাচা, বুদু চাচা,বদর চাচাসহ আরও অনেকে। তিনি বলেন, এ জনপদ কে আওয়ামী লীগের ঘাটি করতে যারা কাজ করছেন তাদের প্রতি সম্মান জানিয়ে আজ আমি এ এলাকায় এসেছি নৌকার কথা বলতে।
তিনি বলেন, মায়ের কাছে মামা বাড়ির কথা বলে লাভ নেই , আপনারা আমার চাইতে অনেক ভালো বলতে পারবেন। আজ আমি যখন কিছু বলার সুযোগ পেয়েছি, তাই আমি আমার নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য কিছু বলবো। আমার নেত্রী প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ৮ বছর শাসন আমলে জনগনের জীবনমান উন্নয়নে কি করেন নাই? তিনি বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের ভাগ্যে উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। জননেত্রী শেখ হাসিনা তার বাবার চোখে এ দেশ উন্নয়নে স্বপ্ন দেখেন। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে উঠছে তার কন্যার হাতেই। জননেত্রী শেখ হাসিনার আমলেই আগামী নির্বাচনের আগেই বাংলাদেশ বিশ্ব সভায় উন্নয়শীল দেশ এ উন্নীত হতে যাচ্ছে। স্বপ্নের পদ্মা সেতু এখন বাস্তব রুপ নিয়েছে।
তিনি বলেন, যে বাংলাদেশকে তলাবিহিন ঝুড়ি বলা হতো, সে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে প্রতিনিধিত্ব করে। মানায়নমার আমাদের দেশের একটি বিরাট অংশ দখল করে ছিল।
বিগত আমলের কোন রাষ্ট্র প্রধান তা উদ্ধার করতে পারে নাই। জননেত্রী শেখ হাসিনা তা উদ্ধার করেছে। তিনি সমুদ্র জয় করেছেন আরেকটি বাংলাদেশ অর্জন করেছেন।
তিনি আরও বলেন, ভারতের কাছে থেকেও টেবিল বৈঠকের মাধ্যেমে আমাদের জল সীমা উদ্ধার করেছেন। জননেত্রী শেখ হাসিনা ১০ লাক্ষ রহিঙ্গাকে বাংলাদেশে আশ্রয় দিয়েছেন। এবং তাদের জন্য খাবার,বাসস্তান, চিকিৎসা দিয়ে বিশ্বে প্রশংসিত হয়েছেন।


বজ্রকণ্ঠি সুবক্তা শান্ত বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধের চেতনা পুনরুদ্ধার করেছেন। তিনি খালেদা জিয়া- রাজাকার মুজাহিদ-নিজামির হাত থেকে রক্ষা করে বাংলাদেশকে আসল পরিচয়ে ফিরিয়ে এনেছেন।
তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষা ব্যবস্থায় অনেক সহজ করেছেন মেয়েদের জন্য শিক্ষা ব্যবস্থা অবৈতনিক করেছেন। কৃষি ক্ষেত্রে অবারিত উন্নয়ন এনেছেন।
শান্ত বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা ময়মনসিংহ চরাঞ্চলের ছেলে মেয়েদের জন্য তিনটি স্কুল করে দিয়েছেন। চরাঞ্চলে শতভাগ বিদ্যুতের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। এ কৃতিত্বের জন্য আমার বাবা আলহাজ অধ্যক্ষ মতিউর রহমানও দাবিদার।
এর আগে সম্মেলনস্থলে যোগদানের পূর্বে শম্ভূগঞ্জ থেকেই পথে পথে হাজার হাজার নেতাকর্মী,সমর্থক ও সাধারণ জনতা প্রিয় নেতা মোহিত উর রহমান শান্তকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।
পথে তিনি চরখরিচা উচ্চ বিদ্যালয়ে হাজারও ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে দেখা করেন। স্কুলের ছাত্র ছাত্রীদের শিক্ষা সফর উপলক্ষে ব্যক্তিগত আর্থিক অনুদান দেয়ার ঘোষনা দেন।

সর্বশেষ খবর



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



আমাদের সঙ্গী হোন

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

বাসা#৪৯, রোড#০৮, তুরাগ, ঢাকা।
বার্তা কক্ষ : 01781804141
ইমেইল : timesofbengali@gmail.com

 

© এ.আর খান মিডিয়া ভিশন এর অঙ্গ প্রতিষ্ঠান

      সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার টাইমস্ অফ বেঙ্গলী .কম

কারিগরি সহযোগিতায় এ.আর খান হোস্ট